fbpx

গ্রাফিক্স ডিজাইনের উপর ১০০% ফ্রি কোর্স

Graphic Design Free Bangla Course

আপনি যদি কোন অফিসে অথবা কোন হসপিটাল যান তাহলে দেখবেন আপনি যে মানুষটার সাথে দেখে করতে গেছেন আসার সময় সে আপনাকে একটি কার্ড দিবে। যে কার্ডে তার প্রতিষ্ঠানের লোগো এবং তার সম্পর্কে সব কিছু সুন্দর ভাবে লেখা রয়েছে। অথবা, আপনি যদি রাস্তার পাশ দিয়ে হাঁটেন আপনার চোখে পরবে অনেক রকমের ব্যানার, বিলবোর্ড যেখানে রয়েছে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন যেখানে রয়েছে বিভিন্ন কালার এবং লেখার মিশ্রণ। এই সুন্দর কাজ গুলাকেই গ্রাফিক্স ডিজাইন বলে আর যারা এই কাজ করে তাদের বলা হয় গ্রাফিক্স ডিজাইনার। ডিজাইন হল এক ধরনের সৃজনশীল কাজ। আপনি যদি সৃজনশীল কোন কাজকে নিজের ক্যারিয়ার হিসেবে নিতে চান তাহলে গ্রাফিক ডিজাইন হতে পারে আপনার জন্য সঠিক সিদ্ধান্ত।

বর্তমানে অনলাইন এবং অফলাইন দুই সেক্টরে গ্রাফিক্স ডিজাইনের প্রচুর চাহিদা রয়েছে। আপনি যদি ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস ভিজিট করেন তাহলে দেখতে পারবেন এই সেক্টর থেকে মানুষ প্রতিমাসে লক্ষ টাকা ইনকাম করছে। সম্পূর্ণ ফ্রিতে কি ভাবে গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখবেন আজকের এই আর্টিকেল সেই টিপস সম্পর্কে জানব। প্রফেশনাল গ্রাফিক্স ডিজাইনার কিভাবে হবেন? এই ব্যাপারে জানতে এই ব্লগ পড়ে নিতে পারেন প্রফেশনাল গ্রাফিক্স ডিজাইনার হওয়ার জন্য ১৩টি গুরুত্বপূর্ণ টিপস।

গ্রাফিক্স ডিজাইন কি?

গ্রাফিক ডিজাইন এমন একটি প্রক্রিয়া, যেখানে আপনার নিজের আইডিয়া, শিল্প, এবং দক্ষতা, ব্যবহার করে ছবি, শব্দ , এবং ধারণার মিশ্রণ করে একটি আলাদা এবং নতুন ছবি ডিজাইন তৈরি করা। বিভিন্ন Text, pictures এবং ধারণার মিশ্রনের দ্বারা তৈরি হওয়া এই নতুন ডিজাইনটি হলো গ্রাফিক্স। যা কম্পিউটার সফটওয়্যার দ্বারা তৈরি করা হয়। একটি গ্রাফিক্স ডিজাইন হতে পারে তথ্যবহুল। আরেকটু সাবলীল ভাষায় বলতে গেলে গ্রাফিক্স ডিজাইন হল একটি আর্ট যা কম্পিউটার সফটওয়্যার ও টুলের মাধ্যমে করা হয়।

সম্পূর্ণ ফ্রিতে কিভাবে শিখবেন গ্রাফিক্স ডিজাইন?

আমরা যখন ছাত্র জীবন শুরু করি শুরুতে কিন্তু আমাদের ক্লাস টেন এর বই হাতে ধরিয়ে দেয়া হয় না। প্রথমে আমাদের বর্ণ, অক্ষর, সংখ্যা ইত্যাদি সম্পর্কে জ্ঞান অর্জন করতে হয়। তারপর আমরা যখন ক্লাস ওয়ান, ক্লাস টু, এই ভাবে এক একটি করে ক্লাস পার হয় তখন আমরা একটা সময় নিজে নিজে লিখতে পারি, পড়তে পারি, শব্দ গঠন করতে পারি। আসলে প্রতিটা জিনিসের শিখার ব্যপারটা এমন, আমরা যা শিখতে চাই শুরুতে আমাদের সেই বিষয়ের একদম বেসিক থেকে শুরু করতে হবে। আমরা যখন বেসিক সব কিছু শিখে ফেলব তখন আমাদের সেই বিষয়ের বা জিনিসের আরও ভিতরে অ্যাডভান্স কি রয়েছে সে সম্পর্কে খুবই সহজে শিখতে পারব।

গ্রাফিক্স ডিজাইনের ক্ষেত্রেও বিষয়টি এই রকম। যখন গ্রাফিক্স ডিজাইনের বেসিক আমরা জানতে পারব এবং ডিজাইন এর প্রতিটা টুলস এর ব্যবহার সম্পর্কে জানতে পারব তখন খুব সহজে যেকোন ডিজাইন করতে পারব। বেসিক সম্পর্কে না জেনে যদি আমরা শুরুতে অ্যাডভান্স কাজ শিখতে যায় তখন কিছু শিখা হবে না। সব কিছু অনেক বেশি কঠিন মনে হবে। আর এই সকল দিক বিবেচনা করে আমাদের গ্রাফিক্স ডিজাইনের উপর ৩০ মিনিটের একটি Exclusive Tutorial তৈরি করা হয়েছে। শর্ট এই ভিডিওটি দেখার মাধ্যমে গ্রাফিক্স ডিজাইনের বেসিক সম্পর্কে ক্লিয়ার একটি ধারণা আপনি পেয়ে যাবেন ইনশাল্লাহ।

আশা করছি উপরের ভিডিওটি দেখার পর ফটোশপের ব্যাপারে আপনার একটি বেসিক একটি ধারণা হয়ে গিয়েছে। এখন আপনি যদি চান আরও ভালোভাবে এডভান্স ডিজাইন শিখতে তাহলে আপনার জন্য সুখবর হচ্ছে, গ্রাফিক্স ডিজাইনের উপর আমাদের একটি  সম্পূর্ণ ফ্রি কোর্স আছে। নিচের দেয়া ১০টি ভিডিওটি স্টেপ-বাই-স্টেপ দেখুন এবং তারই সাথে প্র্যাকটিস করুন। তাহলেই দেখবেন গ্রাফিক্স ডিজাইনের বেসিক থেকে এডভান্স অনেক কিছুই আপনার শেখা হয়ে গেছে এবং অনেক কাজ আপনি নিজেই করতে পারছেন। তাই আর দেরি না করে কনফিডেন্সের সাথে কোর্সটি দেখা শুরু করুন। 

বাংলায় এডোবি ফটোশপের সম্পূর্ণ ফ্রি কোর্স

১) ফটোশপ ড্যাশবোর্ড ওভারভিউ

গ্রাফিক্স ডিজাইন মূলত ফটোশপ দিয়ে করা হয়। তাই গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে হলে আগে ফটোশপ ড্যাশবোর্ড সম্পর্কে ভাল ধারণা রাখতে হবে। ফটোশপ ওপেন করলে শুরুতে একটি ড্যাশবোর্ড আসে এবং উপরে অনেক গুলা লেখা রয়েছে এবং সাইডে কিছু টুলস রয়েছে। এই ভিডিওটি দেখলে আপনি ফটোশপ এর ড্যাশবোর্ড সম্পর্কে ধারণা পেয়ে যাবেন।

২) সিলেকশন টুলের ব্যবহার

ফটোশপে এই টুলটি দিয়ে সেপ বা পাথ গুলোর এনকর পয়েন্ট গুলো সরানো যায় । ডিরেক্ট সিলেকশন টুলটি পাথ সিলেকসন এর ঠিক পরেই থাকে। ফটোশপে পেন টুল বা সেপ টুল ব্যবহার করে যে পাথ তৈরি করা হয় সে গুলাকে সিলেক্ট করতে বা অবস্থার পরিবর্তন করতে সিলেকশন টুলস ও ডিরেক্ট সিলেকশন টুলস ব্যবহার করা হয়। এই ভিডিওটিতে সিলেকশন টুল ব্যবহার করে বাংলাদেশের একটি পতাকা ডিজাইন করে সিলেকশন টুলের ব্যবহার ব্যবহার শিখানো হয়েছে।

৩) ডার্কস্পট রিমুভ এবং স্কিন স্মুথ করা

ডিজাইনে যখন কারও ছবি ব্যবহার করা হয় সেটা কিন্তু ক্যামেরা দিয়ে তুলে সরাসরি ব্যবহার করা যায় না। ফটোশপ টুল ব্যবহার করে স্কিনের ডার্কস্পট রিমুভ করে স্কিন আরও স্মথ করে তারপর ব্যবহার করতে হয়। একটি ছবি থেকে কি ভাবে ডার্কস্পট রিমুভ করে এবং স্কিন স্মথ করা যায় সে টুল এর ব্যবহার সম্পর্কে এই ভিডিওতে শিখনো হয়েছে।

৪) ফটো কালার ইফেক্ট এবং রিটাচিং

গ্রাফিক্স ডিজাইন করার ক্ষেত্রে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কাজ কালার ইফেক্ট। ডিজাইনের সাথে ম্যাচ করে যদি কালার ইফেক্ট না দেয়া হয় তাহলে ডিজাইন আকর্ষণীয় হয় না। এটি খুবই সুন্দর এবং মজার কাজ। কি ভাবে কালার ইফেক্ট ব্যবহার করে একটি ছবিকে সুন্দর আকর্ষণীয় করা যায় সেই বিষয়ে এই ভিডিওতে শিখানো হয়েছে।

৫) কালার গ্রেডিয়েন্ট টুলের ব্যবহার

গ্রেডিয়েন্ট বলতে একাদিক রঙ বা কালার শুরু হয়ে ক্রমশ মিশ্রিত হওয়াকে বোঝায় । ফটোশপে খুব সহজে গ্রেডিয়েন্ট টুল ব্যবহার করে কালার গ্রেডিয়েন্ট তৈরি করতে করা যায়। কি ভাবে গ্রেডিয়েন্ট টুল ব্যবহার করে কালার গ্রেডিয়েন্ট করতে হয় তার সব কিছু শিখনো হয়েছে এই ভিডিওতে।

৬) ল্যান্ডস্কেপ ডিজাইন তৈরি এবং এডিট

রঙ তুলি বা ব্রাশ সম্পর্কে আমরা সবই কমবেশি জানি। ছোট বেলায় কম বেশি সবাই এইগুলা দিয়ে আকাআকি করেছি। ফটোশপে এই রকম বিভন্ন ধরনের ব্রাশ টুল রয়েছে। প্রফেশনাল গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে হলে ফটোশপের ব্রাশ টুল এর সঠিক ব্যবহার সম্পর্কে জানতে হবে। ব্রাশ টুল এর সেটিং, কি কি ধরনের ব্রাশ টুল রয়েছে এবং ব্রাশ টুল ব্যবহার করে কি ভাবে সিনারি তৈরি করবেন এই সব কিছু শিখতে পারবেন এই ভিডিও মধ্যে। যাকে ল্যান্ডস্কেপ ডিজাইন বলা হয়।

৭) Amazing নিয়ন টেক্সট ইফেক্ট

বিভিন্ন ডিজাইনের দিকে লক্ষ্য করলে দেখবেন টেক্সট মধ্যে বা অনেক সময় ছবির মধ্যে এক ধরনের লাইটের ইফেক্ট ব্যবহার করা হয় যাকে নিয়ন টেক্সট ইফেক্ট বলে। আপনার কাছে যদি কোন লাইট না থাকে তাহলে আপনি ফটোশপ দিয়ে এই ইফেক্ট দিতে পারবেন। কি ভাবে নিয়ন ইফেক্ট দিবেন, কোন টুল ব্যবহার করবেন এই বিষয়ে সব কিছু শিখনো হয়েছে এই ভিডিওটিতে।

৮) ফটো মানিপুলেশন টেকনিক

ফটো মানিপুলেশন হলো মুলত ব্যস্তবতার কাছাকাছি একটি ভিজ্যুয়াল জগতের ছবি। অর্থাৎ আমাদের কল্পনার চিন্তা ভাবনাকে আমরা ফটোশপ দিয় ফটো মানিপুলেশনরে মাধ্যমে বাস্তবে রুপ দিতে পারি। গ্রাফিক্স ডিজাইনে ফটো মানিপুলেশন খুবই জনপ্রিয় এবং গুরুত্বপূর্ণ একটি কাজ। আমরা যে দেশের ও বিদেশের বিভিন্ন মুভির পোষ্টার ডিজাইন দেখে থাকি সেগুলা ফটো মানিপুলেশন এর মাধ্যমে করা হয়। ফটোশপের কোন কোন টুল ব্যবহার করে ফটো ফটো মানিপুলেশন করা হয় সেই সম্পর্কে শিখনো হয়েছে নিচের এই ভিডিওটিতে।

৯) প্রিমিয়াম বিজনেস কার্ড ডিজাইন

এই আর্টিকেলের শুরুতে একটি কথা বলেছিলাম যে, আপনি যদি কোন অফিসে যান অথবা কোন হসপিটাল যান তা হলে দেখবেন আপনি যে মানুষটার সাথে দেখে করতে গেছেন আসার সময় সে আপনাকে একটি কার্ড দিবে। যে কার্ডে তার প্রতিষ্ঠানের লোগো এবং তার সম্পর্কে সব কিছু সুন্দর ভাবে লেখা রয়েছে। যাবে ভিজিটিং কার্ড বা বিজনেস কার্ড বলা হয়। এই কাজটা কিন্তু ফটোশপের বিভিন্ন টুল ব্যবহার করে করা হয়। বলা যায় গ্রাফিক্স ডিজাইনের সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং চাহিদা সম্পূর্ণ কাজ হল বিজনেস কার্ড ডিজাইন। কি ভাবে প্রিমিয়াম বিজনেস কার্ড ডিজাইন করবেন সে বিষয়ে বিস্তারিত শিখনো হয়েছে এই ভিডিওতে।

১০) কর্পোরেট ফ্লাইয়ার ডিজাইন

প্রতিটা ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের পরিচিতি লাভের সবচেয়ে মোক্ষম অস্ত্র হচ্ছে একটি সুন্দর বিজনেস ফ্লায়ার। মূলত একটি আকর্ষণীয় বিজনেস ফ্লায়ারের মাধ্যমে অতি সহজেই পণ্য গ্রাহকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করা সম্ভব। এটিকে আমরা সহজ বাংলায় লিফলেট বলতে পারি। বিভিন্ন বড় বড় প্রতিষ্ঠান তাদের সকল সুযোগ সুবিধা এবং পণ্যর ছবি দিয়ে এই লিফলেট বা ফ্লাইয়ার তৈরি করে থাকে যা মূলত একজন দক্ষ গ্রাফিক্স ডিজাইনার দিয়ে করাতে হয়। কি ভাবে ফটোশপের বিভিন্ন টুল ব্যবহার করে কর্পোরেট ফ্লাইয়ার ডিজাইন করবেন সে বিষয়ে শিখতে পারবেন এই ভিডিওটিতে।

পরিশেষে একটি কথা, আশা করি এই ভিডিওগুলো দেখার পর ফটোশপ এবং গ্রাফিক্স ডিজাইন সম্পর্কে ভালো একটা ধারণা পেয়েছেন। এই বেসিক ধারনাকে যদি আরও প্রফেশনাল লেভেলে নিয়ে যেতে চান এবং প্রফেশনাল গ্রাফিক্স ডিজাইনার হয়ে ইনকাম করতে চান তাহলে আপনার জন্য MSB Academy-তে রয়েছে একটি বিশাল সুযোগ। Adobe Photoshop & Adobe Illustrator এর কম্বিনেশনে কমপ্লিট Graphic Design Mastery With Freelancing & Microstock এই গ্রাফিক ডিজাইন কোর্সটি ভালোভাবে কমপ্লিট করার মাধ্যমে যেকেও এই সেক্টরে এক্সপার্ট হতে পারবে ইনশাল্লাহ।

ফ্রিল্যান্সিং এবং ৮টিরও বেশি Microstock সাইট থেকে প্যাসিভ ইনকাম করার গাইডলাইন সহ ১৫০০ ডলার সমমূল্যের ডিজাইন রিসোর্স এই কোর্সে দেয়া হবে। একবার কোর্সে জয়েন হলে পাবেন লাইফ টাইম কোর্স এক্সেস+ লাইফ টাইম সাপোর্ট এবং ফ্রী কোর্স আপডেট। সুতরাং যদি প্রফেশনাল গ্রাফিক্স ডিজাইনার হয়ে প্যাসিভ ইনকাম করতে চান তাহলে আর সময় নষ্ট না করে জয়েন করে ফেলুন কোর্সটিতে। আপনার জন্য রইল শুভকামনা।

Leave a Reply

error: Alert: Content selection is disabled!!