Blog

Shopify কি? কিভাবে শপিফাই এক্সপার্ট হয়ে প্রতি মাসে হাজার ডলার ইনকাম করবেন?

shopify bangla course

সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে প্রযুক্তি নিত্য নতুন অগ্রগতি আমাদের জীবনকে অনেক সহজ করে তুলেছে। তার মধ্যে একটি হল শপিফাই (Shopify)। শপিফাই একটি কানাডিয়ান ই-কমার্স কোম্পানী। Shopify প্লাটফর্ম ব্যাবহার করে মূলত ছোট থেকে বড় যেকোনো কোম্পানি খুব সহজেই নিজেদের প্রডাক্ট সেল করার জন্য অনলাইন স্টোর খুলতে পারে। এটি মূলত একটি ই-কমার্স ওয়েবসাইট বিল্ডার, যেটা ব্যবহার করে খুব সহজে ই-কমার্স ব্যবসা শুরু করা যায়। এই প্লাটফর্মের অনেক ইউনিক ফিচার আছে যার কারনে সপিফাই গ্লোবালি প্রচুর জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।

২০২১ সালের এক পরিসংখ্যানে দেখা গিয়েছে শপিফাই এর প্রায় ২.১ মিলিয়ন ডেইলি ইউজার রয়েছে এবং ১ মিলিয়নের উপর অডার তারা প্রসেস করেছে। ২০২১ সাল পর্যন্ত ১.৭ মিলিয়নেরও বেশি ব্যবসায়ী তাদের অনলাইন স্টোরগুলিকে শক্তিশালী করার জন্য Shopify প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করেছে। আর বিপুল জনপ্রিয় এই প্লাটফর্মটি ব্যাবহার করে যারা সাইট তৈরি করছে বা Shopify Expert যারা আছে তারা কিন্তু খুব সহজই প্রতি মাসে ২-৩ হাজার ডলার ইনকাম করছে ফ্রীলান্সিং মার্কেটপ্লেসগুলো থেকে।

Shopify শপিফাই কি?

Shopify হচ্ছে একটি ওয়েব বেইসড ই-কমার্স সফটওয়্যার। যার মাধ্যমে কোন এডভান্স টেকনোলজি বা ওয়েব ডেভেলপমেন্ট জ্ঞান ছাড়াই ই-কমার্স ওয়েবসাইট বা অনলাইন স্টোর তৈরি করা যায়। এটি একটি সম্পূর্ণ কমার্স প্ল্যাটফর্ম যা আপনাকে একটি ব্যবসা শুরু করতে, বৃদ্ধি করতে এবং পরিচালনা করতে দেয়। আরও সহজ ভাবে বলতে গেলে Shopify হল একটি ওয়েব প্ল্যাটফর্ম, যাতে ব্যবহারকারীরা অনলাইন দোকান খুলতে, পণ্য বিক্রি করতে এবং পেমেন্ট নিতে পারে এবং আপনার পণ্যগুলো আপনার অনলাইন স্টোর এর মাধ্যমে অনলাইনে অফার করতে পারবেন।

Shopify-কে বলা হয় অল-ইন-ওয়ান ই-কমার্স সলুশন যেখানে কোন কোডিং ছাড়াই খুব অল্প সময়ে একটা বেসিক সাইট তৈরি করে ফেলা যায়। আলাদাভাবে হোস্টিং কেনা কিংবা সাইট মেনেজমেন্টের জন্য কোন টেকনিক্যাল নলেজে লাগে না। শপিফাই ১৭৫ টিরও বেশি দেশে ব্যবহৃত হয় এবং ২০+ ভাষায় Shopify ব্যবহার ব্যবহার করা হয়। একাধিক দেশের পেমেন্ট গ্রহণ করা যায়। বিশ্বব্যাপী অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে শপিফাই $৩১৯ বিলিয়ন ডলারের মার্কেট এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের তৃতীয় বৃহত্তম ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম শপিফাই। সুতরাং বুঝতে পারছেন এই প্ল্যাটফর্ম এর জনপ্রিয়তা এবং ইউজার যে হারে বাড়ছে, অদূর ভবিষ্যৎতে সিংহভাগ ই-কমার্স ওয়েবসাইট তৈরি হবে শপিফাই দিয়ে।

Shopify প্লাটফর্ম ব্যবহারের ৫টি সুবিধা

এখন আপনার মনে প্রশ্ন আসতে পারে কেন আপনি শপিফাই ব্যবহার করবেন? শপিফাই ব্যবহার কি এমন বিশেষ সুবিধা রয়েছে? ই-কমার্স ওয়েবসাইট বা অনলাইন স্টোর তৈরি করার জন্য শপিফাই চমৎকার ওয়েব বেইসড ই-কমার্স সফটওয়্যার। এর বিশেষ কিছু সুবিধা রয়েছে। চলুন এবার জেনে নেয়া যাক শপিফাই ব্যবহারের ৫টি অসাধারণ সুবিধাঃ

১) সহজে ব্যবহার যোগ্যঃ শপিফাই দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করতে বা স্টোর তৈরি করতে কোন প্রকার প্রোগ্রামিং জানা লাগবে না। যে কেউ খুব সহজে স্টোর তৈরি করতে পারবে। শপিফাই যেন সহজে সবাই ব্যবহার করতে পারে সেই ব্যপারটা মাথায় রেখে ডিজাইন করা হয়েছে, এমনকি অ-প্রযুক্তিগত ব্যবহারকারীরা যেন সহজে একটি অনলাইন স্টোর তৈরি  করে ফেলতে পারে সেই ভাবে তৈরি করা হয়েছে। খুবই ইউজার ফ্রেন্ডলি একটা প্লাটফর্ম এই শপিফাই।

২) অ্যাপ স্টোরঃ Shopify-এর রয়েছে একটা অ্যাপ স্টোর। বিভিন্ন অ্যাপ সাইটে অ্যাড করার মাধ্যমে খুব সহজে ওয়েবসাইটে নতুন নতুন ফিচার অ্যাড করা যায়। স্টোরে সোশ্যাল মিডিয়া ইন্টিগ্রেশন থেকে শুরু করে পেমেন্ট গেটওয়েতে কার্যকারিতা যোগ করা, ইমেইল মার্কেটিং, ব্যানার অ্যাড করা, বিভিন্ন Pop-up যোগ করা, টাইমার ইত্যাদি হাজারো ফিচার খুব সহজেই অ্যাড করে ফেলা সম্ভব। ওয়ার্ল্ডের বড় বড় অনেক কোম্পানির সফটওয়্যারের Shopify App Store এর জন্য অ্যাপ আছে, এমনকি অনেক ডেভেলপাররা Shopify এর জন্য আলাদাভাবে অ্যাপও বানায়। আর এইভাবেই Shopify App Store দিনকে দিন আরও অনেক শক্তিশালী হয়ে উঠছে। যা অন্য সব ইকমার্স প্লাটফর্ম থেকে এই Shopify-কে আলাদা করেছে।

৩) নিরাপদ এবং নির্ভরযোগ্য হোস্টিং ব্যবস্থাঃ একটি ওয়েবসাইট তৈরি করার কথা মাথায় আসলে সবচেয়ে বেশি সমস্যা হয় হোস্টিং নিয়ে। Shopify আপনার অনলাইন স্টোরের জন্য নির্ভরযোগ্য এবং নিরাপদ হোস্টিং অফার করে। তাই আপনাকে সার্ভার রক্ষণাবেক্ষণ বা নিরাপত্তা সংক্রান্ত সমস্যা নিয়ে চিন্তা করতে হবে না। এছাড়া Shopify এর প্রফাইড করা হোস্টিং খুবই ফাস্ট, তাই সাইট ব্রাউজ করার ক্ষেত্রেও ইউজাররা গ্রেট একটা এক্সপেরিয়েন্স পায়।

৪) মোবাইলে সহজে ব্যবহার যোগ্যঃ অনেক ই-কমার্স ওয়েবসাইট বা স্টোর রয়েছে যা মোবাইল দিয়ে সহজে ব্যবহার করা যায় না। ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে অনেক সময় নেয়। সহজে স্টোর থেকে কোন প্রোডাক্ট অর্ডার করা যায় না। Shopify স্টোরগুলিকে মোবাইল যেন সহজে ব্যবহার করা যায় সেই ভাবে ডিজাইন করা হয়েছে। মোবাইল দিয়ে আপনার স্টোরটি দুর্দান্ত সুন্দর দেখা যাবে। এমনকি ওয়েবসাইটের Owner হিসাবে আপনি এবং আপনার স্টাফরা Shopify Mobile App ব্যাবহার করে অ্যাপ দিয়েই সাইটে প্রডাক্ট অ্যাড করা এবং অর্ডার ম্যানেজমেন্টের কাজগুলো করে ফেলতে পারবে। যা কাজের প্রোডাক্টিভিটি বহুগুনে বাড়াবে।

৫) ২৪/৭ কাস্টমার সাপোর্টঃ যেকোন ওয়েবসাইটের ক্ষেত্রে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হল সাপোর্ট যা সব জাগায় পাওয়া যায় না। শপিফাই সেক্ষেত্রে অনেকটা আলাদা। Shopify প্লাটফর্ম ব্যাবহার করলে আপনি যেকোনো প্রয়জনে তাদের কাছ থেকে সাপোর্ট ফোনে, ইমেল এবং লাইভ চ্যাটের মাধ্যমে নিতে পারবেন। যার ফলে কোন সমস্যায় পড়লে আপনার অযথা খুব বেশি সময় নষ্ট হবে না।

শপিফাই দিয়ে কি কি ধরনের পণ্য বিক্রি করা যায়?

শপিফাই দিয়ে আপনি সকল ধরনের ফিজিক্যাল প্রোডাক্ট বিক্রি করতে পারবেন। যেমন পোশাক,গহনা, ইলেকট্রিক্যাল প্রোডাক্ট, বই, আসবাবপত্র ইত্যাদি পণ্য প্রমোট করে বিক্রয় করতে পারবেন। এমনকি ডিজিটাল যে সকল প্রোডাক্ট রয়েছে যেমন সফ্টওয়্যার, ওয়েব টেম্পলেট, এনিমেশন, ভিডিও, সঙ্গীত, বা ইবুক এই সব কিছু সেল করতে পারবেন।

পরিসেবা মূলক যা রয়েছে যেমন অ্যাপয়েন্টমেন্ট বা বুকিং সাবস্ক্রিপশন-ভিত্তিক পণ্য, কাস্টম বা ব্যক্তিগতকৃত পণ্য সব কিছু আপনি বিক্রি করতে পারবেন। আপনি নিজেও নতুন কোন ইকমার্স প্রোডাক্ট নিয়ে আসতে পারেন। পৃথিবীতে যত ধরণের ই-কমার্স প্রোডাক্ট প্রচলিত রয়েছে তার সবই শপিফাইতে প্রমোট এবং বিক্রি করা সম্ভব।

Shopify কিভাবে কাজ করে?

শপিফাইয়ের তিন ধরনের প্ল্যান রয়েছে। শপিফাইয়ের প্রতিটি প্ল্যানে আপনি পাবেন একটি ডোমেইন, সিকিউরিটি সকেটস লেয়ার (SSL) এবং ওয়েব হোস্টিং। তবে শপিফাই বেসিক প্ল্যানে যে সকল ফিচার পাবেন সেগুলো ব্যবহার করে আপনি নতুন অনলাইন শপ শুরু করতে পারবেন খুব সহজে। বেসিক প্ল্যান ব্যবহার করে আপনি যদি অনলাইন শপ শুরু করেন তাহলে আপনি ওয়েবসাইটে অসংখ্য পণ্য যুক্ত করতে পারবেন, দুইটা ইউজার এ্যাকাউন্ট যুক্ত করতে পারবেন, আনলিমিটেড ফাইল স্টোরেজসহ আরো অনেক কাজ করতে পারবেন। আর আপনি যদি আপনার ব্যবসাকে নেক্সট লেভেলে নিতে চান তাহলে 3rd Party App ব্যবহার করতে হবেই। আর শপিফাই এবং আডভান্স প্ল্যানে E-commerce Automation ফিচারটি আপনার সাইটকে সেলিং মেশিনে কনভার্ট করতে সক্ষম। আর পেমেন্টের জন্য শপিফাই এর নিজস্ব পেমেন্ট মেথড” শপিফাই পেমেন্টস” রয়েছে যেটা ব্যবহার করে লেনদেন করলে প্রতিটি লেনদেনের জন্য আপনাকে বিক্রির অর্থ থেকে ২.৯%+৩০ সেন্ট দিতে হবে।

মাত্র ১ ডলারে Shopify দিয়ে সাইট তৈরি করতে এই লিঙ্কে ভিজিট করুনঃ https://www.msbacademy.com/shopify

একটি সাইট তৈরি করার পর এর এডমিন প্যানেল ম্যানেজ করার বেশ ঝামেলার কাজ। যার জন্য এডমিন প্যানেল ম্যানেজ করতে অন্য আলাদা ডেভেলপার রাখতে হয়। এক্ষেত্রে যদি আপনি যদি Shopify ব্যবহার করে সাইট বানান, তাহলে আপনার কোন ডেভেলপার লাগবে না, নিজে সবকিছু করতে পারবেন। আপনার সাইটের ডিজাইন করার জন্য এইখানে আপনি দরকারি বিভিন্ন রকমের টুলস ও থিম পেয়ে যাবেন।

শপিফাই এক্সপার্ট হিসাবে কিভাবে ইনকাম করবেন?

আমরা কম বেশি সবাই জানি যে, আমাদের দেশ এবং দেশের বাহিরে লোকজন ড্রপশিপিং অনেক দিন ধরে করে আসছে। Shopify আসার পর এই ব্যাপারটা অনেকাংশে সহজ হয়ে গিয়েছে। যারা ড্রপশিপিং ব্যবসায় সাথে জড়িত বা জড়িত হতে চাচ্ছেন তাদের অধিকাংশেরই পছন্দের প্ল্যাটফর্ম হলো Shopify। বাংলাদেশ থেকে অনেকেই এখন শপিফাই দিয়ে ড্রপশিপিং করে ইনকাম করছে। সহজে পরিচালনাযোগ্য ও ঝামেলামুক্ত বলে ইকমার্স সাইট তৈরির জন্য শপিফাইকেই সবাই এখন বেচে নিচ্ছে। আর ড্রপশিপিং বিজনেসকে Automate করার জন্য অনেক জনপ্রিয় অ্যাপ Shopify App Store-এ আছে।

ড্রপশিপিং ছাড়া যারা নিজেদের প্রডাক্ট বিক্রির জন্য সাইট তৈরি করে তারাও কিন্তু ইকমার্স এবং One Product স্টোর তৈরির জন্য এখন Shopify প্লাটফর্মকেই বেঁছে নিচ্ছে। উন্নতদেশগুলোতে (যেমন: USA, UK, Canada, Australia, Germany, India etc) সপিফাই উইজার বেশি আর ইকমার্স বিসনেস এবং ড্রপশিপিং এর জন্য Shopify মুলত তাদের #১ পছন্দ। আর এই কারনেই ফ্রীলান্সিং সাইটগুলতে Shopify এর প্রচুর কাজ রয়েছে। আর এইসব কাজের ডিমান্ড যেমন প্রচুর তেমনি কাজগুলোর বাজেটও অনেক হাই। ক্লাইন্টের কাজের রিকুয়ারমেন্টের উপর ভিত্তি করে Shopify দিয়ে আপনি একটা ওয়েবসাইট তৈরি করে সর্বনিম্ন ৪০০ ডলার বা ৪০,০০০ টাকা থেকে শুরু করে ২০০০ ডলার বা দুই লক্ষ টাকা আয় করতে পারবেন।

Shopify Expert হতে হলে কি কি জানা লাগবে?

  1. Shopify One Product Store Design
  2. Free And Premium Theme Customization
  3. Understanding Product Variation
  4. Payment Gateway Setup
  5. Shopify Apps Customization

Shopify দিয়ে সাইট তৈরির মূল চ্যালেঞ্জ হলো সব রিসোর্স একসাথে কম্বাইন করা এবং দরকার অনুসারে পারফেক্টলি সব সেটাপ করা। Google, Youtube-এ আপনি সপিফাই লিখে সার্চ করলে প্রচুর টিউটোরিয়াল পাবেন ঠিকই কিন্তু সবই সেখানে অগুছালো! আর কোন একটা কাজ করতে গেলে মাঝ পথে আটকে গেলে সেটার কোন সমাধানও পাওয়া যায়না। আর ঠিক এই সকল বিষয় বিবেচনা করে MSB Academy প্লাটফর্মে পাবলিশ করা হয়েছে Freelancing With Shopify Masterclass কোর্সটি। কোর্সটি করে ইতিমধ্যে ৯০% স্টুডেন্টদের আরনিং শুরু হয়ে গেছে অ্যান্ড অনেকের ইনকাম এখন প্রতি মাসে ১০০০+ ডলারও ছাড়িয়েছে। 

এই Shopify কোর্সে কোডিং ছাড়াই ফ্রি অ্যান্ড পেইড থিম দিয়ে স্টোর তৈরি, পেজ বিল্ডার দিয়ে ডিজাইন, প্রোডাক্ট ইম্পোর্ট এবং আপলোড, ড্রপশিপিং-এর জন্য প্রোডাক্ট রিসার্চ, প্রোডাক্ট মার্কেটিং ও অর্ডার ম্যানেজমেন্টের সবকিছু শিখানো হবে। ড্রপশিপিং এবং ফ্রীলান্সিং মার্কেটপ্লেসে হাই-ডিমান্ডের সব কাজ করার সম্পূর্ণ গাইডলাইন দেয়া হবে এই কোর্সে। মজার বিষয় হলো সাইট তৈরির এই কাজগুলো করতে আপনার Shopify-এর পেইড সাবস্ক্রিপশনতো কেনা লাগবেই না, এমনকি এক্সট্রা ১ টাকাও খরচ করতে হবে না।

Shopify-কে বলা হয় অল-ইন-ওয়ান ই-কমার্স সলুশন যেখানে কোন কোডিং ছাড়াই খুব অল্প সময়ে একটা বেসিক সাইট তৈরি করে ফেলা যায়। আলাদাভাবে হোস্টিং কেনা কিংবা সাইট মেনেজমেন্টের জন্য কোন টেকনিক্যাল নলেজে লাগে না। আপনি যদি শপিফাই ব্যবহার করে আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করেন তাহলে আপনাকে ওয়েবসাইটের সিকিউরিটি, আপডেট, ব্যাকআপ ইত্যাদি বিষয়সমূহ নিয়ে কোনো চিন্তাই করতে হবে না। আর আপনি যদি একজন Shopfiy Expert হিসাবে নিজেকে গড়ে তুলতে পারেন তাহলে আপনার ভবিষ্যৎ ক্যারিয়ার নিয়ে কোন চিন্তাই করতে হবে না। কারণ, অনলাইন কেনাবেচা যতদিন থাকবে ততদিন মার্কেটে Shopify রাজত্ব করবে, নিশ্চিত ভাবেই বলা যায়!!

Comments

  • User Avatar
    tanvirkhan34
    February 12, 2023

    চমৎকার লিখেছেন হাবিব ভাই, ধন্যবাদ আপনাকে।

  • User Avatar
    mohon48
    May 9, 2023

    সুন্দর লিখেছেন। সাদি ভাইয়ের একজন স্টুডেন্ট আমি। কোর্সটি অনেক সুন্দর করে সাজিয়েছেন ভাই।

Leave a Reply

error: Alert: Content selection is disabled!!